ডাকপিয়ন

নতুন দরিদ্রের হিসেব মানতে অস্বীকৃতি অর্থমন্ত্রীর

দেশে অনেক মানুষের আয় কমেছে মহামারি করোনার কারণে কাজ হারিয়ে ও কাজের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়ে। নতুনভাবে এতে অনেকে দরিদ্র হয়েছেন বলে দাবি করছে বেসরকারি একাধিক গবেষণা সংস্থা। তবে এসব গবেষণা প্রতিষ্ঠান দেশের নতুন দরিদ্রের যে হিসাব দিয়েছে তা মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে বুধবার এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নতুন দরিদ্রের এই হিসাব আমি স্বীকার করি না। যাদের কাছে তালিকা আছে দুই কোটি বা এক কোটি বা ১০ জন, এই তথ্য তারা কোথায় পেয়েছেন তা জানা দরকার।’

তিনি আরও বলেন, এই কাজটি (দরিদ্রের হিসাব) করার জন্য সরকারের নিজস্ব প্রতিষ্ঠান আছে। পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস), বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) এসব প্রতিষ্ঠান থেকে যতদিন তথ্য না পাওয়া যাবে, ততদিন অন্য প্রতিষ্ঠানের তথ্য সরকার গ্রহণ করতে পারে না।

বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ১১টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার কমিটিতে। এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙ্গামাটি, বান্দরবন, খাগড়াছড়ি জেলার যোগাযোগ উন্নত করতে আইসিটি বিভাগের অপটিক্যাল ফাইবার স্থাপন সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন...

ওবায়েদুল কাদেরের বোনের বাসায় হামলা

ঝলক গোপ পুলক

স্বস্তির বৃষ্টি

news dakpiyan

লকডাউনের সুপারিশ সীমান্তবর্তী ৭ জেলায়

ঝলক গোপ পুলক